ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন করার নিয়ম 2023

Rate this post

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন করার নিয়ম 2023 E-Passport Correction: বর্তমান সময়ে ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ই পাসপোর্ট আবেদন করতে পাচ্ছেন মানুষজন । এখন আর বাইরে কোনভাবে হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে না । অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে অনেক সময় কিছু ভুল পরিলক্ষিত হয়ে থাকে । তবে এ নিয়ে কোন দুঃচিন্তার কিছু নেই । প্রত্যেকটি সমস্যার সমাধান রয়েছে । এখন ঘরে বসে যেভাবে অনলাইনের মাধ্যমে পাসপোর্টের আবেদন করতে পারবেন সেভাবে আবেদনের কোন ভুল সংশোধন করতে হলে আপনাকে কিছু নিয়মের মাঝে থেকে আবেদনের ভুল সংশোদন করে নিতে হবে । সেই বিষয়ে আমরা আজকের এই আলোচিত লেখার মাধ্যমে তুলে ধরেছি । আপনারা মনোযোগ সহকারে আমাদের ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন কন্টেনটি দেখুন ।

E-Passport Correction Online

আপনি কি ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন নিয়ে ভাবছেন ? তাহলে এখন আর চিন্তা নয় । এখানে আমরা আজকের লেখনির মধ্যে ই পাসপোর্ট আবেদনের সংশোধন নিয়ে আলোচনা করেছি । বিস্তারিত দেখতে পারবেন ই পাসপোর্ট আবেদনের ভুল সংশোধনের যাবতীয় নিয়মাবলি সম্পর্কে । ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন ।

কিভাবে আবেদন করবেন এবং আবেদনের সময় ভুল হলে তা কিভাবে সংশোধন করবেন । কোথায় কোথায় এই ভুল সংশোধনের জন্য আপনাকে যেতে হবে, এসকল কিছু আমাদের এখানে আজকের আলোচনা থেকে অবশ্যই জানতে পারবেন । আশা করি আমাদের আজকের আলোচনাটুকু ভালোভাবে মনোযোগ সহাকারে পড়বেন । নিচে এর বিস্তারিত আলোচনা করা হলো ।

ই পাসপোর্ট আবেদন করার নিয়ম

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন– অনলাইনের মাধ্যমে ই পাসপোর্ট করার ক্ষেত্রে আাপনাকে নির্ধারিত ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদনের জন্য সকল তথ্য সংরক্ষন করতে হবে । আবেদনের সকল তথ্য দেওয়ার পরে বারংবার ভালো করে চেক করে নিতে হবে যে কোন প্রকার ভুল হয়েছে কি না । এখানে একটি বিষয় খুবই খেয়াল রাখতে হবে যে , আবেদনের সম্পুর্ন সাবমিট দেওয়ার পূর্বে কোন প্রকার ভুল থাকলে সংশোধন করতে পারবেন । কিন্তু আবেদন সাবমিট হওয়ার পরে আবেদন কপি ডাউনলোড দেওয়ার পরে তা সংশোধন করতে পারবেন না । এক্ষেত্রে আপনাকে কিছু নিয়মের মাধ্যমে আবেদনের তথ্য ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন করতে হবে ।

আবেদনের সাবমিট হওয়ার পর কোন তথ্য ভুল দেখা গেলে তা দুটি পদ্ধতির মধ্যে আপনি সংশোধন করতে পারবেন । এতে করে আপনার ভুল যে বিষয়টি সেটিকে মার্ক করে এ সকল কার্য ভালোভাবে পুনরায় সংশোধনের জন্য তৈরী হতে হবে । যাতে করে আবারো ভুল না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে ।

যেভাবে ভুল সংশোধন করতে পারবেন ই পাসপোর্টের

পাসপোর্ট আবেদনের ক্ষেত্রে কিভাবে সেই দুটি পদ্ধতিকে কাজে লাগিয়ে আপনার পাসপোর্ট এর আবেদনের ভুল অংশ সংশোধন করবেন তা নিয়ে আলোচনা দুটি পদ্ধতিকেই প্রাধান্য দিতে হবে । যেভাবে প্রথম পদ্ধতিতে ই পাসপোর্ট ভুল সংশোধন করবেন । প্রথমত আবেদনের ক্ষেত্রে কোন ছোট দুএকটি বিষয় নিয়ে ভুল ধরা পরলে এটির জন্য আপনাকে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে যেতে হবে । আগে ভুলটি দু একটি অক্ষরের নাকি বড় ধরনের এটি আপনাকে মার্ক করতে হবে । খুব বেশি ভুল হলে কিন্তু পাসপোর্ট অফিস আপনার আবেদনটি গ্রহন করবে না । কারণ তাদের কাছে সকল প্রকার ডকুমেন্টস রয়েছে যা আপনার সাথে মিলিয়ে দে;খবে । এতে কোন প্রকার বড় ভুল হলে তা রিজেক্ট কর দিবে বা পুনরায় আপনাকে আবেদন করতে হবে ।

প্রথমত আপনাকে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে সেখানকার কম্পিউটার অপারেটরকে অনুরোধ করে আপনার ছোট বিষয়ের যে ভুল রয়েছে সেটিকে সংশোধন করে নিতে পারবেন । অন্য কোথাও থেকে আবেদনের সংশোধন না করাই ভালো এতে করে আপনার আবেদনের সংশোধনের বদলে আরো ভুল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি রয়েছে । তাই সংশ্লিষ্ট অফিসে গিয়ে কম্পিউটার অপারেটর এর সাথে বিষয়টি শেয়ার করলে আপনাকে ছোটখাটো সেই ভুলটি সংশোধন করে দিতে সক্ষম হবে ।

E-Passport Correction System

ই পাসপোর্ট সংশোধনের দ্বিতীয় ধাপ হলো আপনার পাসপোর্টের কোন বড় ধরনের ভুর পরিলক্ষিত হলে সেটি একমাত্র পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তাই পারে আপনার আবেদনের ভুলটি সংশোধন করে দিতে । আপনাকে পাসপোর্ট অফিস কর্মকর্তাকে অনুরোধ করতে হবে আপনার ভুলটি সংশোধন করে দেওয়ার জন্য । সেক্ষেত্রে যদি অফিসার আপনার ভুলটি সংশোদন করে দেন তবে অনেক ভালো । কিন্তু এতে যদি রাজি না হন তবে আপনার আর কোন উপায় সেই মুহুর্তে নেই । একমাত্র উপায় আপনাকে নতুনভাবে আবারো অনলাইন আবেদন করা ।

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন

কিন্তু আবারো নতুনভাবে আবেদন করতে হলে কিছু নিয়মকানুন মেনে আবেদনটি করতে হবে । আপনার পূর্বের আবেদনের কিছু তথ্য সেখানে যোগ করতে হবে । যেমন আপনার পূর্বের যে আবেদন রয়েছে সেই আবেদনের বাতিল করতে হবে । বাতিল করতে হলে আপনাকে প্রথমত সহকারি উপ-পরিচালক বরাবর একটি দরখাস্ত করতে হবে । সেখানে নিজের নাম এবং বাবা মায়ের নাম, ঠিকানাসহ আবেদনের তারিখ উল্লেখ করতে হবে ।

অনলাইনের মাধ্যমে ই পাসপোর্ট সংশোধন

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন এরপর আপনাকে পূর্বের আবেদনের আইডি নাম্বার দিতে হবে । আপনার আবেদনের আইডি নাম্বারটি পাবেন আবেদনটি সাবমিট করার পরে অ্যাপ্লাই সামারিতে । সেখানে দেওয়া থাকবে OID দিয়ে থাকা একটি আইডি নাম্বাার । সেটি উপ পরিচালক বরারর দিয়ে সেখানে আবারো আপনার পূর্বের আবেদনের যে ভুল রয়েছে সেই আবেদন কপিটি যুক্ত করে দিতে হবে । তাদের কাছে যাতে করে আপনার ভুল বিষয়টি চিহ্নিত থাকে । এরপরে আপনার আবেদনের যাবতীয় তথ্য আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে জমা দিতে হবে ।

অফিসে দরখাস্ত জমাদানের পর আপনার ভুলকৃত আবেদনটি বাতিল করার জন্য যে প্রক্রিয়া তারা করবে,সেক্ষেত্রে আপনার উল্লেখিত মোবাইল নাম্বারে একটি এসএমএস যাবে । সেই এসএমএস আসার পর আপনাকে সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজের একাউন্ট দিয়ে লগইন করতে হবে ।

কিভাবে ই পাসপোর্ট বাতিল করবেন

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন লগইন করতে গিয়ে আপনার আবেদনের শুরুতে সেই অংশে লাল অক্ষরে Cencel ক্যানসেল লেখা দেখাবে এরপরে সেখানে DELET ডিলেট অপশন আসবে । আপনাকে দুটোই ক্যানসেল এবং ডিলিট করে দিতে হবে । অর্থ্যাৎ আপনার পূর্বের আবেদনটি বাতিল করার জন্য এখানে এই অপশনগুলো শো করবে । এরপরে আপনার পুর্বের আবেদনটি বাতিল হবে ।

এই আবেদনটি বাতিল হলো কি না সেটি চেক করার জন্য আপনাকে চেক ম্যানুতে বার বার ভালো করে দেখতে হবে এবং কনফার্ম হতে হবে । কারন পূর্বের আবেদনটি বাতিল না হওয়া পর্যন্ত আপনি নতুৃনভাবে আবেদন করতে পারবেন না । পূর্বের আবেদনটি বাতিল হতে সকল প্রক্রিয়া শেষে তবুও ২৪ ঘন্টার মতো সময় লাগতে পারে । এবং চেক স্টাটাসে আসতে আপনার ৩-৭ দিন সময় ও লেগে যেতে পারে । এক্ষেত্রে আপনাকে সেই সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে ।

ই পাসপোর্ট আবেদনের ক্ষেত্রে ৬ মাসের মধ্যে আবেদন ফি টাকা জমা দিতে হয় । ৬ মাসের মধ্যে টাকা জমা, আঙ্গুলের ছাপ, এবং ছবি তোলা এগুলোর ডাক আসে । এই ৬মাসের মধ্যে এগুলোর কাজ না হলে আবেদনটি এমনিতেই বাতিল হয়ে যাবে । এরপর আপনি আবারো নতুনভাবে আবেদন করতে পারবেন ।

ই পাসপোর্ট আবেদন ফি জমাদান

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন এখানে আর একটি বিষয় রয়েছে যেটি নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন করেছে । পূর্বের যে আবেদনটি বাতিল করা হলো সেই আবেদনের ভূল সংশোধন বা এর যে নতুনভাবে আবেদনের প্রক্রিয়া রয়েছে সেক্ষেত্রে আবারো নতুনভাবে টাকা দিতে হবে কি না ? এ ধরনের প্রশ্ন থাকতে পারে । এ জন্য আপনাকে ভুল সংশোধনের জন্য যে আবেদন করেছেন বা পাসপোর্টের জন্য আবেদন এর যে নির্ধারিত ফি জমা দিয়েছেন সেই ফি বাতিল হবে না ।

আপনার যথাযথ নিয়মে পাসপোর্টে আবেদন করেছেন এবং ফি জমা দিয়েছেন এরপরে আপনার ভুল ধরা পরলে আবেদনের সংশোধন করলে কিংবা নতুনভাবে আবেদন করলেও দ্বিতীয়বার ফি প্রদান করতে হবে না । সেক্ষেত্রে আপনকে পূর্বের আবেদনের ফি জমাদানের ব্যাংক রশিদ এবং চালানের কাগজ জমা দিতে হবে । এই বিষয়টি মাথায় রেখে আাপনাকে কাজগুলো করতে হবে ।

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন

উপরোক্ত আলোচনা থেকে আশা করি আপনারা ভালোভাবে বুঝতে পারবেন ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন নিয়মাবলি সম্পর্কে । এখানে বিস্তারিতভাবে আমরা আলোচনা করলাম । ই পাসপোর্টের ক্ষেত্রে যদি কারো এ ধরনের ভুল হয়ে থাকে তাহলে এই নিয়মে আপনি আপনার আবেদনের ভুল সংশোধন কিংবা নতুনভাবে আবারো আবেদনটি করতে পারবেন ।

ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন, E-Passport Correction করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা এবং এ ধরনের আরো বিভিন্ন পাসপোর্ট কিংবা ভিসা সম্পর্কিত তথ্য নিয়ে আমাদের এই ওয়েবসাইটে আমরা আলোচনা করে থাকি । তাই আমাদের এই ঠিকানাটি সবার মাঝে ছড়িয়ে দিন এবং সবার সাথে শেয়ার কের আমাদের ওয়েবসাটটি নিয়মিত ভিজিট করুন । এখানে আপনারা আরো দেখতে পারবেন প্রতিদিনের সকল সরকারি চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ।

চলমান সকল ধরনের চাকরির খবর নিয়ে আমরা নিয়মিত আপডেট দিয়ে থাকি । বেসরকারি, কোম্পানি এবং এনজিও চাকরির খবরগুলো সবার আগে এখানে এই ঠিকানায় দেখতে পারবেন । অ্যাপ্লাই ফর জবস ২৪ ডট কম চাকরি সংক্রান্ত সকল তথ্য ২৪ ঘন্টা চাকরির খবর পেতে নিয়মিত ভিজিট করতে ভুলবেন না । সেই সাথে আমাদের ওয়েব ঠিকানাটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন ।