সপ্তম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

সপ্তম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

৭ম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর (সপ্তম সপ্তাহ) বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক প্রকাশিত dshe.gov.bd চলতি সপ্তাহের ৭ম সপ্তাহে ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষাএ্যাসাইনমেন্ট উত্তর বা সমাধান মাধ্যমিক পড়ুয়া ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সু-খবর নিয়ে হাজির হলাম, তোমরা যারা Class 7  Dharma Assignment Answer Or Solution নিয়ে ভাবছো বা চিন্তিত কি? না আর  নয় টেনশন এখন থেকে এপ্লাই ফর জবস্ ২৪.কম তোমাদেরকে ২৪ ঘন্টা চাকরির খবরের পাশাপাশি মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক সহ সকল শ্রেণির এসাইনমেন্ট উত্তর দিয়ে সর্বাত্বক সহোযোগিতা করবে।ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট ৭ম শ্রেণির সৃজনশীল প্রশ্ন সমাধান ৭ম সপ্তাহের প্রশ্ন প্রকাশ হওয়ার সাথে সাথেই আমারা উত্তর নিয়ে হাজির হলাম। ৭ম শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট ২০২১ ধর্ম উত্তর দেখুন

৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ৭ম সপ্তাহ অনেকেই ভূল উত্তর দিয়ে থাকে সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। ক্লাস Seven ধর্ম অ্যাসাইনমেন্ট ১০০% সঠিক উত্তর আমরা দিয়ে থাকি । সকল বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তরগুলো অভিজ্ঞ শিক্ষক দ্বারা অনুসারিত । তাই আপনারা এখান থেকে ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ৭ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর খুব সহজেই পাবেন ।

৭ম সপ্তাহের সপ্তম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

 

৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ৭ম সপ্তাহ অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর নিয়ে আমরা এই পোস্টে আজকে বিস্তারিত লিপিবদ্ধ করেছি । ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ৭ম সপ্তাহ অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর । ৭ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে যারা চিন্তা করতেছেন যে কবে ৭ম সপ্তাহের উত্তরগুলো পাবো ? তাদের জন্য আমাদের এই পোস্ট টি অনেক কাজে দিবে । এখানে ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর দেওয়া হয়েছে । এবং আমাদের এই পেজে প্রতিনিয়ত সকল বিষয়গুলো আপডেট দেওয়া হয়ে থাকে । ৭ম সপ্তাহের সকল অ্যাসাইনমেন্ট ‍উত্তর আমাদের এই পেজ থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন । দেখুন.. সপ্তম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১  ।

 সপ্তম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির ইসলাম শিক্ষা অ্যসাইনমেন্ট উত্তর

সপ্তম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর নিচে দেওয়া হলো । যারা ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইমেন্ট উত্তর খুজছেন এখান থেকে সংগ্রহ করুন । যেহেতু ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ন । সবার কাছে এই বিষয়টি সহজ মনে হয় না অনেকের কাছে ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়টি খুব কঠিন মনে হয় । অনেক ভয় করেন এই বিষয়টি নিয়ে । এখানে কোনো ভয়ের কারণ নেই । ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা হলো সবথেকে একটা সহজ বিষয় । অ্যাসাইনমেন্ট এ যে বিষয়গুলো উল্লেখিত রয়েছে তার প্রক্যেকটি অংশ এখানে ভাগ ভাগ করে দেওয়া আছে আপনারা দেখে নিন । ৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ।

৭ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট উত্তরঃ

এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ-২,

অধ্যায় ও অধ্যায়ের শিরােনাম: দ্বিতীয় অধ্যায়,

পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত পাঠ নম্বর ও বিষয়বস্তু:

পাঠ-১: সালাত
পাঠ-২: বিভিন্ন প্রকারের সালাত,
পাঠ-৩: ঈদের সালাত;

এসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজঃ মনে কর তুমি ৭ম শ্রেণির একজন শিক্ষার্থী। নিয়মিত মসজিদে গিয়ে জামা’আতের সাথে পাঁচ ওয়াক্ত সালাত আদায় কর। নিচে বর্ণিত অবস্থাগুলাের ক্ষেত্রে তুমি কীভাবে সালাত আদায় করবে বর্ণনা দাও

যেকোনাে ৩টি বিষয়ের বর্ণনা লেখ:

১। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে (স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে)

২। সালাতে এক বা দু’রাকাত মাসবুক হলে।

৩। মুসাফির অবস্থায় মাগরিব, এশা ও ফজরের সালাত।

৪। অসুস্থ অবস্থায় সালাত (যখন তুমি দাড়াতে বা বসতে পার না)।

নির্দেশনাঃ পাঠ্যবইয়ের অধ্যায় দুইয়ের সংশ্লিষ্ট পাঠের আলােকে বিষয়বস্তুর মৌলিক চাহিদাগুলাে শনাক্ত করতে হবে। প্রয়ােজনে সহায়ক পুস্তকের সাহায্য নেওয়া যেতে পারে।

পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে আলােচনা করে বিষয়ের সঠিকতা সম্পর্কে সম্যক ধারণা নেওয়া যেতে পারে। কোনাে তথ্য উৎস থেকে অবিকল (হুবহু) কোনাে তথ্য লিখে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়া যাবে না। অ্যাসাইনমেন্ট অবশ্যই নিজ হাতে লিখে জমা দিতে হবে।

৭ম সপ্তাহের সপ্তম শ্রেণির ইসলাম শিক্ষা এসাইনমেন্ট উত্তর

সালাতে এক বা দুই রাকাত মাসবুক হলে : যে ব্যক্তি নামাজে এক বা একাধিক রাকাত শেষ হওয়ার পর ইমামের সাথে জামাতে অংশগ্রহণ করে তাকে মাসবুক বলে। মুসল্লী জামা’আতে সালাত আদায় করতে গিয়ে ইমামকে যে অবস্থায় পাবে সে অবস্থাতেই নিয়ত করে নামায অংশগ্রহণ করবে। তারপর ইমামের সাথে যথারীতি রুকু, সিজদাহ করে তাশাহহুদ এর জন্য বসে যাবে। ইমাম সালাম ফিরালে সে মুসল্লী সালাম না ফিরিয়ে দাঁড়িয়ে যাবে এবং ছুটে যাওয়া রাকাআতগুলো রুকু, সিজদাহ করে যথারীতি তাশাহহুদ, দুরুদ, দোয়া মাসূরা পড়ে সালাম এর মাধ্যমে সালাত শেষ করবে। রুকুসহ ইমামের সাথে যে কয় রাকাত পাওয়া যায় তা আদায় হয়ে যায়। রুকুর পর ইমামের পিছনে ইক্তেদা বা নামাজে দাঁড়ালে ওই রাকাত মাসবুককে আদায় করতে হবে।

দুই রাকাত নামাজ ছুটে গেলে ইমামের সালাম ফেরানোর পর মুক্তাদি দাঁড়িয়ে যাবে এবং ছুটে যাওয়া দুই রাকাত যথানিয়মে আদায় করবে, যেভাবে ফজরের দুই রাকাত ফরজ সালাত একাকী আদায় করতে হয়।

মুসাফির অবস্থায় মাগরিব, এশা ও ফজরের সালাত : মুসাফির আরবী শব্দ এর অর্থ ভ্রমণকারী কমপক্ষে ৪৮ মাইল দূরবর্তী কোনো স্থানে যাওয়ার নিয়তে কোন ব্যক্তি বাড়ি থেকে বের হলে শরীয়তের পরিভাষায় তাকে মুসাফির বলে। এমন ব্যক্তি এমন ব্যক্তি গন্তব্যস্থলে পৌঁছে কমপক্ষে ১৫ দিন অবস্থানের নিয়ত না করা পর্যন্ত তার জন্য মুসাফিরের হুকুম প্রযোজ্য হবে।

শরীয়তে মুসাফিরকে সংক্ষিপ্ত আকারে সালাত আদায়ের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এই সংক্ষিপ্তকরণকে আরবিতে কসর বলা হয়। মুসাফির অবস্থায় যোহর, আসর ও এশার ফরজ সালাত কসর করে পড়তে হয়।

যেমন, আল্লাহ তা’য়ালা বলেন- وإذا ضربتم في الأرض فليس عليكم جناح أن تقصروا من الصلاة

অর্থ : “যখন তোমরা দেশ-বিদেশে সফর করবে, তখন সালাত সংক্ষিপ্ত করলে তোমাদের কোন দোষ নেই।” (সূরা আন-নিসা, আয়াত ১০১)

চার রাকাত বিশিষ্ট অর্থাৎ যোহর, আসর ও এশার ফরজ সালাত মুসাফির ব্যক্তি দুই রাকাত করে আদায় করবে। ফজর, মাগরিব ও বিতরের নামাজে কসর নেই। এগুলো পুরোপুরি আদায় করতে হবে। আল্লাহর দেওয়া সকল সুযোগ-সুবিধা খুশিমনে গ্রহণ করা উচিত। কাজেই কোনো মুসাফির ব্যক্তি যদি ইচ্ছে করে জোহর, আসর বা এশার ফরজ সালাত চার রাকাত আদায় করে, তবে আল্লাহর দেওয়া সুযোগ গ্রহণ না করায় গুনাহগার হবে। কিন্তু ইমাম যদি মুকিম (স্থায়ী) হয়, তাহলে সে ইমামের অনুসরণ করে পূর্ণ সালাত আদায় করবে। সফর একটি কষ্টকর বিষয়। তাই আল্লাহ তাঁর বান্দার উপর সালাত সংক্ষিপ্ত করার অনুমতি প্রদান করেছেন।

সপ্তম শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট ৭ম সপ্তাহের উত্তর

অসুস্থ অবস্থায় সালাত ( যখন আমি দাঁড়াতে বা বসতে পারি না )

রোগী বা অক্ষম ব্যক্তির যথানিয়মে সালাত আদায় করতে না পারলে, তার জন্য ইসলামে সহজ নিয়ম এর অনুমোদন রয়েছে। রোগীর সেই সহজ নিয়মে সালাত আদায়কে রুগ্ন ব্যক্তির সালাত বলে।

যদি রোগী এতই দুর্বল হয় যে বসে থাকা সম্ভব নয়, তবে কিবলার দিকে পা দুটি রাখতে হবে। পা সোজা রেখে হাটু উঁচু করে রাখতে হবে এবং মাথার নিচে বালিশ অথবা এ জাতীয় কিছু জিনিস রেখে মাথা একটু উঁচু রাখতে হবে। শুয়ে ইশারায় রুকু সিজদা করবে অথবা উত্তর দিকে মাথা রেখে কাত হয়ে শুয়ে এবং কিবলার দিকে মুখ রেখে ইশারায় সালাত আদায় করবে। যদি এভাবে ও সালাত আদায় করা সম্ভব না হয়, তবে তার উপর সালাত আর ফরজ থাকেনা মাফ হয়ে যায়। অপারগ অবস্থায় বা কেউ বেহুশ হয়ে পড়লে যদি ২৪ ঘন্টা সময়

অর্থাৎ পাঁচ ওয়াক্ত সালাতের বা তার চেয়ে কম সময় অতিক্রান্ত হয়, তাহলে সক্ষম হওয়ার পর রুগ্ন ব্যক্তি কে কাযা করতে হবে। যদি পাঁচ ওয়াক্তের বেশি সময় অতিবাহিত হয়, তবে আর কাযা করতে হবে না। এতে একথা প্রতীয়মান হয় যে, সালাত এমন একটি ইবাদত, যা সক্ষমতার শেষ সীমা পর্যন্ত আদায়ের হুকুম দেয়া হয়েছে। কোনভাবেই সালাত ত্যাগ করা যাবে না।

Class 7 Islam and Moral Education Assignment Answer 2021 7th Week

বিষয় সপ্তম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
গনিত সপ্তম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির গনিত অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর
হিন্দুধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা সপ্তম সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির হিন্দুধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

About ApplyForJob

Check Also

মহাদেশ ও মহাসাগর কয়টি ও কি কি

মহাদেশ ও মহাসাগর কয়টি ও কি কি

মহাদেশ ও মহাসাগর কয়টি ও কি কি মহাদেশ গুলোর নাম: আমরা পৃথিবীতে বসবাস করি, এই …

Leave a Reply